নিউজপ্রেসবিডি । NewsPressBD
সত্য, সম্পূর্ণ সত্য এবং কেবলমাত্র সত্য

একজন মুহিত অবসরে যাচ্ছেন

আবদুল মান্নান

১৭

বহুল আলোচিত আবুল মাল আবদুল মুহিত রাজনীতি থেকে সরে আসছেন। বলা যায়, রাজনৈতিক জীবনের সমাপ্তি টানতে চান। অবসরে য যাবেন তিনি। এজন্যে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

শনিবার রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এএমএ মুহিত বলেন, আমার দীর্ঘ কর্মজীবন প্রায় ষাট বছরের বেশি। সরকারি চাকরিতেই জয়েন করেছি সত্তরের কিছু কম হলেও কাছাকাছি। এখন অবসরের প্রস্তুতি নিচ্ছি। ১৯৩৪ সালের ২৫ জানুয়ারি জন্ম নেওয়া মুহিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করার পর ১৯৫৬ সালে সিএসপি কর্মকর্তা হিসেবে কাজ শুরু করেন।

এই যাত্রায় ষাট বছরের বেশি পার করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের মতো একটি কঠিন ও জটিল মন্ত্রণালয় সামলাচ্ছেন তিনি। সুহেলী বিলকিস জালালের ‘রমনার বেদীমুল হতে’ এবং ‘ফ্রম দ্য সিটাডেল অব রমনা’ শিরোনামের কবিতার বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি।বইয়ের প্রকাশক ডা. সিএম দিলওয়ার রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। দৈনিক ইত্তেফাকের সম্পাদক তাসমিমা হোসেন ও সাংসদ কবি কাজী রোজীসহ আরও অনেকেই যোগ অনুষ্ঠানে।অনুষ্ঠানে সুহেলীর ‘রমনার বেদীমুল হতে’ কাব্য থেকে একটি কবিতা পড়ে শোনান মুহিত। আর ‘ফ্রম দ্য সিটাডেল অব রমনা’ থেকে একটি কবিতা আবৃত্তি করেন আবৃত্তিকার আহকাম উল্লাহ।

- বিজ্ঞাপন -

আবুল মাল আবদুল মুহিত রাজনীতিতেও এক আলোচিত ব্যক্তিত্ব। সরকারি কর্মকর্তা , অতঃপর রাজনীতিতে আগমন সব মিলে তিনি এক কর্মমুখর মানুষ। অর্থ মন্ত্রণালয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করায় তিনি আরও আলোচিত। হাসি যেনো লেগে থাকে তার মুখে সবসময়। সচেতন এবং আপাদমস্তক এক শিক্ষিত মানুষ। জীবনে তিনি কাউকে কনসেশন করে কথা বলেছেন তা আমাদের জানা নেই। তার দীর্ঘ জীবন কামনা করি।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা অনুমান করব আপনি এর সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি যদি চান তবে আপনি অপট-আউট করতে পারেন। স্বীকারআরও পড়ুন