নিউজপ্রেসবিডি । NewsPressBD
সত্য, সম্পূর্ণ সত্য এবং কেবলমাত্র সত্য

দেশের উন্নয়নে কর দিতে হবে – রাজস্ব বোর্ডের আলোচনা সভায় বক্তারা

দেশে এক শ্রেণীর মানুষের কর না দেয়ার অভ্যাস আছে। একসময় নিজের প্রকৃত আয়কে গোপন করা হতো।এই কিছুকাল আগেওে আয়কর দেওয়ার ক্ষেত্রে মিথ্যা হিসাব দেওয়া হতো এবং ওই হিসেবে তার কর নির্ধারণ হতো। এখন আর তা নেই । এখন দেশের অনেক মানুষই কর দিয়ে থাকে। কর ফাঁকি দেওয়ার অভ্যাস কমে আসছে। যাদের অনেক টাকা আছে বা অনেক টাকা আয় করে থাকে তাদের কর দেওয়া রেওয়াজে পরিনত হওয় দরকার। ব্যবসা-বাণিজ্য এবং চাকরি করে আয় করাটা কোন অন্যায় নয়। রীতিমতো তা বৈধ আয়- উপার্জনের মধ্যেই পড়ে। বৈধ উপার্জনের হিসাব রাখা এবং সরকারের আইনে তা অন্তর্ভুক্ত করার বিষয় একটি শৃঙ্খলার ব্যাপার। ব্যক্তি শৃঙ্খলায় ফিরে আসলে জাতির মধ্যে শৃঙ্খলা তৈরি হবে।

আজ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, দেশের উন্নয়নের জন্যে কর দিতে হবে। যা দেশের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করবে। অনুষ্ঠান থেকে কর প্রদানে তরুণদের প্রতি সচেতন হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চলচ্চিত্র তারকা গুলশান আরা আক্তার চম্পা, চলচ্চিত্র তারকা ফেরদৌস, রিয়াজ, গায়ক শুভ্র দেব। অনুষ্ঠানে এনবিআর কর্মকর্তারা বলেন, করদাতাদের ভেতর আয়কর নিয়ে অতীতে যে নেতিবাচক ভাব ছিল, আয়কর মেলা ও দিবস পালনের মাধ্যমে তা দূর হয়েছে বলে আমরা মনে করি। এনবি আর এর চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম সবাইকে আয়কর দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, করদাতাদের সঙ্গে এনবিআর এর সম্পর্ক বাড়ছে। এনবিআর আন্তর্জাতিক করনীতি বিষয়ক সদস্য কালীপদ হালদার বলেন, গত বছর করদাতা ছিল ৩২ লাখ, এ বছর তা ৩৮ লাখ হয়েছে। ২০১৪ সালে ছিল মাত্র ১২ লাখ।

- বিজ্ঞাপন -

চলচ্চিত্র তারকা রিয়াজ বলেন, অর্থমন্ত্রী বলেছেন- কর দেওয়া বাহাদুরি, আমিও তা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি। পদ্মা সেতুর কাজ চলছে, এর একটি সিমেন্টের বস্তা আমার টাকায় কেনা হলে – তা নিয়ে আমি মনেপ্রাণে গর্ববোধ করি।

শুভ্র দেব বলেন, নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু করতে পারলে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু টাওয়ারও করতে পারব আমরা । উদ্দেশ্য সাধনে সবাইকে কর দিতে হবে। আয়কর প্রদানে সচেতনতা বাড়াতে প্রতি বছর ৩০ নভেম্বর আয়কর দিবস পালন হয়। এবার দিবসের স্লোগান ছিল ‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’।আয়কর দিবস উপলক্ষে প্রতিবার শোভাযাত্রা বের করা হলেও এবার জাতীয় নির্বাচনের আগে সেগুনবাগিচার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ভবন প্রাঙ্গণে শুধু আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা অনুমান করব আপনি এর সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি যদি চান তবে আপনি অপট-আউট করতে পারেন। স্বীকারআরও পড়ুন