নিউজপ্রেসবিডি । NewsPressBD
সত্য, সম্পূর্ণ সত্য এবং কেবলমাত্র সত্য

জনপ্রিয় ব্যান্ড তারকা আইয়ুব বাচ্চু আর নেই

২৮

আজ সকাল সোয়া ৯টার দিকে তিনি মারা যান। অসুস্থতা বোধ করলে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আইয়ুব বাচ্চু ব্যান্ডসংগীতের অন্যতম প্রধান তারকা। আজ সকাল সোয়া নটার দিকে তাকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে জরুরী বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়।

হাসপাতালের জরুরী বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে ‘ আইয়ুব বাচ্চুকে হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা গেছেন’। আইয়ুব বাচ্চুর বহুদিনের ঘনিষ্ঠ সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার মইনুদ্দিন রাশেদ জানিয়েছেন তার সহকারী সকালে মগবাজারের বাসায় গিয়ে তাকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান। এর পর তারা তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। মৃত্যুর কারণ এখনো জানা যায়নি।

- বিজ্ঞাপন -

আইয়ুব বাচ্চু একই সাথে গায়ক ও লিড গিটারিস্ট হিসেবে অনেকেরই প্রিয় শিল্পী। নিজের প্রতিষ্ঠিত ব্যান্ড এলআরবি ছাড়াও তার আগে তিনি সোলস এর সাথেও যুক্ত ছিলেন। গিটারিস্ট পরিচয়ই তার বড় পরিচয়। ব্যান্ডসংগীতকে তিনি বাংলাদেশে জনপ্রিয় করতে বিশেষ অবদান সৃষ্টি করেন। একসময় এরকম ছিল -ব্যান্ডসংগীত মানেই আইয়ুব বাচ্চু। তার দেখাদেখি অনেকেই ব্যান্ড সঙ্গীতের দল সৃষ্টি করেন এবং ব্যান্ড সঙ্গীতের মধ্যে প্রতিযোগিতার আবহ তৈরি হয়। আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে দেশে এক প্রথিতযশা ব্যান্ডসঙ্গীত তারকাকে হারাল। তার অভাব সহজে পূরণ হওয়ার নয়। তার মৃত্যুতে দেশবাসী গভীরভাবে শোকাভিভূত। সঙ্গীত জগতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ব্যান্ড দল এলআরবির লিড গিটারিস্ট ও ভোকালিস্ট আইয়ুব বাচ্চু ছিলেন একাধারে গায়ক, গীতিকার, সুরকার এবং প্লেব্যাক শিল্পী। চার দশক বাংলাদেশের তরুণদের গিটারের মূর্ছনায় মাতিয়ে রাখা এই রকস্টারের বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। গিটার বাদনে ভারতীয় উপমহাদেশজুড়ে তার খ্যাতি ছিল ।

আইয়ুব বাচ্চুর কণ্ঠে ‘সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে, ফেরারী এই মনটা আমার, আমি কষ্ট পেতে ভালোবাসি, একদিন ঘুমভাঙা শহরে, চল বদলে যাই, এখন অনেক রাত, হাসতে দেখ গাইতে দেখ’র মত বহু গান শ্রোতাদের হৃদয় জয় করতে সমর্থ হয়েছে। তিনি বহুকাল মানুষের হৃদয়ে জাগরূক থাকবেন। সকালে তার মৃত্যুর খবরে দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নেমে আসে শোকের ছায়া। ভক্ত শ্রোতাদের পাশাপাশি সংগীত শিল্পীদের অনেকেই ছুটে যান হাসপাতালে। এলআরবির সদস্য শামিম সাংবাদিকদের বলেন, আইয়ুব বাচ্চু কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। আজ বাসায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে সকালে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তিনি ১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

বিশিষ্ট তারকা আইয়ুব বাচ্চুর নামাজে জানাজা শুক্রবার বাদ জুমা হাইকোর্ট মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। তার মরদেহ চট্টগ্রামে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা অনুমান করব আপনি এর সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি যদি চান তবে আপনি অপট-আউট করতে পারেন। স্বীকারআরও পড়ুন